Home Entertainment সিনেমায় নিজের অস্তিত্ব বুঝিয়েছিলেন বাসু চ্যাটার্জী

সিনেমায় নিজের অস্তিত্ব বুঝিয়েছিলেন বাসু চ্যাটার্জী

by admin

২০২০ সালে বিনোদন জগতে একের পর এক খারাপ খবর এসেছে। গত জুন মাসের ৪ তারিখ ভারতীয় চলচ্চিত্র হারিয়েছে একজন অসামান্য পরিচালক ও চিত্রনাট্যকারকে। যিনি মৃনাল সেন , মনি কাউলের মতন বিশ্ববরেন্য পরিচালকদের পাশাপাশি নিজের অস্তিত্ব প্রমান করেছিলেন ভারতীয় চলচ্চিত্রে। তিনি বাসু চ্যাটার্জী। ১৯৬৯ সালে মনি কাউল বানালেন ‘উসকি রোটি’ মৃণাল সেন বানালেন ‘ভুবন সোম’ আর বাসু চ্যাটার্জি বানালেন ‘সারা আকাশ’। সেই সময় বাসু চ্যাটার্জি মধ্যবিত্তের মন , তাঁদের আশা আঙ্খাকা তুলে ধরতে চেয়েছেন।

সমালোচকরা তাঁকে ‘ফ্যামিলি ম্যান’ ডাকতেন। কারণ তাঁর ছবির বিষয়বস্তু জুড়ে থাকত পারিবারিক মেলোড্রামা। অমিতাভ বচ্চন যখন একটা ছবিতে গুন্ডা পেটায় তখন আরেকদিকে সেই অমিতাভই বাসু চ্যাটার্জীর ছবিতে বৃষ্টিভেজা রাস্তায় স্যুট-টাই পরে ‘রিমঝিম গিরে শাওন’ গানে দর্শকদের মুগ্ধ করেছেন। বাসু চ্যাটার্জির এক বিশ্বস্ত নায়ক ছিলেন অমল পালেকর।

বাসু-অমল জুটি জীবনের সেরা কাজ করেছিলেন ৭০ থেকে ৮০র দশকে। রজনীগন্ধা (১৯৭৪), চিতচোর (১৯৭৬) ‘ছোটি সি বাত’ (১৯৭৬) ও বাতো বাতো মে (১৯৭৯)। ছোটি সি বাত ছিল বাসু চ্যাটার্জির অন্যতম সেরা সিনেমা। এই সিনেমার জন্য সেরা পরিচালক হিসাবে ফ্লিমফেয়ার অ্যাওয়ার্ডও পান বাসু চ্যাটার্জী। গতকালই তাঁর জন্মদিন গেছে। এবছর ২৬ তম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে বিশেষ সম্মাননা জানানো হবে বাসু চ্যাটার্জীকে। আগামী ১৩ জানুয়ারি তাঁর সৃষ্টি ছোটি সি বাত দেখানো হবে আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে।

Related Videos

Leave a Comment